সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর সোমবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সৌদি আরবে লক্ষ্মীপুরের এক প্রবাসীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার; পরিবার ও স্বজনদের দাবী খুন

সৌদি আরবে লক্ষ্মীপুরের এক প্রবাসীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার; পরিবার ও স্বজনদের দাবী খুন

সৌদি আরবে লক্ষ্মীপুরের এক প্রবাসীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার; পরিবার ও স্বজনদের দাবী খুন

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের নিকটতম আল হারমোলিয়াহ এলাকার একটি ছাগলের খামারে প্রবাসী বাংলাদেশী আবদুর রহমানের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে সৌদি আরবের পুলিশ। আবদুর রহমান লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চর লরেঞ্চ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডস্থ উত্তর চর লরেঞ্চ গ্রামের মোঃ হানিফের ছেলে।
বৃহস্পতিবার ( ৫ মে) বিকেলে আবদুর রহমানের বাবা মোঃ হানিফ ও ভাই আবুল কাশেম সংবাদটি নিশ্চিত করেন। এর আগে ১ মে সৌদি আরবের পুলিশ তার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করলেও পরিবার সে খবর জানতে পারেনি। সৌদি আরবে অবস্থানরত স্বজনদের বরাত দিয়ে পরিবারের সদস্যরা জানায়, আবদুর রহমানকে খুন করে তার লাশ রাস্তার পাশে ফেলে রেখে গাড়ি চাপায় মৃত্যু হয়েছে বলে প্রচার করে সেখানকার মালিকপক্ষ। তবে উক্ত ঘটনায় পুলিশ এক সৌদি নাগরিক ও একজন সুদানি নাগরিককে আটক করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দিয়েছে বলেও জানান নিহতের পরিবার।
পরিবারের একমাত্র উপার্জনশীল ছেলেকে হারিয়ে এখন চোখে মুখে অন্ধকার দেখেছে বাবা-মা। অন্যদিকে ছেলের লাশ দেশে আনতে আহাজারি করছে অসহায় পরিবার। নিহতের মা লাকী বেগম জানায়, সৌদি আরবে ঈদের আগের দিন বিকেল বেলায় ছেলের সাথে তার শেষ কথা হচ্ছিল। কথা বলার এক ফাঁকে হঠাৎ করে আবদুর রহমান চিৎকার দিয়ে বলে উঠে মা আজরাইল আসে। এ কথা বলেই ফোন কেটে রেখে দেয়। এরপর এদিক থেকে বারবার ফোন দিয়েও আর তাকে পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে বাড়ি থেকে পর পর দুদিন তার ফোনে যোগাযোগ করে যখন কোন উত্তর পাওয়া যায়নি, তখন ঘটনাটি তিনি তার মেয়ের জামাই সৌদি প্রবাসী মোঃ ইউছুপকে জানায়।
পরে ইউছুপ আল হারমোলিয়াহ এলাকায় গিয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারে আবদুর রহমানের সাথে তার সুদানি এক সহকর্মীর ঝগড়া হয়েছিল। ঝগড়ার একদিন পর রহমানের রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। ইউছুপকে সেখানকার স্থানীয়রা জানায়, আবদুর রহমানকে খুন করা হয়েছে। পরে ইউছুপ স্থানীয় হাসপাতালের মর্গে গিয়ে তার লাশ দেখে আসে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের দিকে স্থানীয় এক আত্মীয়ের মাধ্যমে ভালো চাকুরীর আশায় সৌদি আরব পাড়ি যায় আবদুর রহমান। কিন্ত সৌদি গিয়ে জানতে পারে তার চাকুরী মরুভূমিতে উট চরানো।
এ কাজ করা তারপক্ষে মোটে সম্ভব ছিল না। তবুও বহু কষ্টে তিনি ২ বছর কাটিয়েছেন। করোনার সময়ও তার কোন ছুটি ছিল না। এর মাঝে কারণে অকারণে মালিকপক্ষ তাকে মারধর করতো। পরে অতি নির্যাতনে সে সেখান থেকে একদিন তিনি পালিয়ে অন্যত্র চলে যান। যুক্ত হন নতুন আরেকটি কাজে। কিন্ত এখানে গিয়েও সে জানতে পারে তার কাজ মরুভূমিতে ছাগলের খামারের শ্রমিক। নতুন কর্মক্ষেত্রে সুদানি সহকর্মীদের সাথে তার প্রায় ঝগড়া হতো। পরে ১ মে তারিখে রক্তাক্ত অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়।
বিদেশে অবস্থানরত স্বজনদের বরাত দিয়ে পরিবারের সদগস্যরা জানায়, সুদানি কোন একসহকর্মী এবং মালিকের একআত্মীয় রহমান কে খুন করে গাড়ি চাপায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে মিথ্যা প্রচার করে। এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, রহমানের লাশের মাথার পিছনে জখম রয়েছে। শরীরের বাকি অংশগুলো অক্ষত। এঘটনায় কমলনগর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ সোলাইমান জানান, এ বিষয়ে কেউ জানায় নি। এখন নিহতের বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে খোঁজ নেয়া হচ্ছে। অন্যদিকে কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান জানান, খোঁজ নিয়ে লাশ দেশে আনার বিষয়ে আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিবারকে সহায়তা করার চেষ্টা করবো।
Seen by Amjad Hossain Amu at 23:10

বাংলাদেশ | বিশ্ব আরও সংবাদ

ভক্তের স্ত্রী ও ৯০ হাজার টাকা নিয়ে উধাও ফকির খেতা শাহ

সৌদি আরবে লক্ষ্মীপুরের এক প্রবাসীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার; পরিবার ও স্বজনদের দাবী খুন

জন্মসনদে হয়রানি করলে ছাড় দেওয়া হবে নাঃ স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

২০ মে থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ, চলবে তিন সপ্তাহ

লক্ষ্মীপুরের ইয়াছিনের এই কান্না থামাবে কে?

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূর বাড়ি থেকে শিয়াল উদ্ধার; শিয়ালের জন্য কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন গৃহবধূ

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল প্রকাশনার নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত, তারিখ: 9/12/2015  
 All Rights Reserved : Lakshmipur24 ©2012-2022
Chief Mentor: Rafiqul Islam Montu, Editor & Publisher: Sana Ullah Sanu.
Muktijudda Market (3rd Floor), ChakBazar, Lakshmipur, Bangladesh.
Ph:+8801794 822222, WhatsApp , email: news@lakshmipur24.com