সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর শুক্রবার , ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বজনীন পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠন, সুবিধা পাবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা

সর্বজনীন পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠন, সুবিধা পাবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা

0
Share

সর্বজনীন পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠন, সুবিধা পাবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা

সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা চালু করতে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠন করেছে সরকার। সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২৩–এর আওতায় এই কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয়েছে বলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে বলা হয়েছে।

গত ৩১ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২৩–এর অনুমোদন দেন। তারপরই এটি গেজেট আকারে প্রকাশ এবং আইনটির ক্ষমতা বলে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয়। তবে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায় কর্তৃপক্ষের গঠন সম্পর্কে বিস্তারিত আর কিছু বলা হয়নি।

আইন অনুযায়ী, সর্বজনীন পেনশনে ১৮ বছর বা তার বেশি বয়স থেকে ৫০ বছর বয়সী সব বাংলাদেশি নাগরিক অংশ নিতে পারবেন। বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীরাও অংশ নিতে পারবেন। সরকার যতক্ষণ এটিকে সব নাগরিকের জন্য বাধ্যতামূলক না করবে, ততক্ষণ পর্যন্ত সর্বজনীন পেনশন ঐচ্ছিক থাকবে।

বর্তমানে শুধু সরকারি কর্মচারীরা অবসরের পর পেনশন সুবিধা পান। সর্বজনীন পেনশন পদ্ধতিতে সরকারি অথবা আধা সরকারি বা স্বায়ত্তশাসিত অথবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অংশ নিতে পারবে। এ ক্ষেত্রে কর্মী ও প্রতিষ্ঠানের চাঁদার অংশ জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ নির্ধারণ করবে।

আইনে বলা হয়েছে, পেনশনের জন্য নির্ধারিত চাঁদা বিনিয়োগ হিসেবে গণ্য হবে। এতে কর রেয়াত থাকবে। এ ছাড়া মাসিক পেনশন বাবদ পাওয়া অর্থ আয়কর মুক্ত থাকবে। 

মাসিক পেনশন-সুবিধা পেতে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর চাঁদাদাতাকে ধারাবাহিকভাবে কমপক্ষে ১০ বছর চাঁদা দিতে হবে।

এতে বলা হয়, চাঁদাদাতার বয়স ৬০ বছর পূর্তিতে পেনশন তহবিলে পুঞ্জীভূত মুনাফাসহ জমার বিপরীতে পেনশন পাবেন। একজন পেনশনার আজীবন পেনশন-সুবিধা পাবেন। পেনশনে থাকাকালে ৭৫ বছর বয়স পূর্ণ হওয়ার আগে পেনশনার মারা গেলে অবশিষ্ট সময়কালের জন্য মাসিক পেনশন পাবেন তাঁর নমিনি। এ ক্ষেত্রে মূল পেনশনারের বয়স ৭৫ বছর পর্যন্ত যে অর্থ পেতেন, সেই অর্থ নমিনি পাবেন বলে আইনে উল্লেখ আছে।

সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় মাসিক সর্বনিম্ন চাঁদার হার কত হবে, তা নির্ধারণ করবে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ। তবে মাসিক চাঁদা দিতে দেরি হলে ফিসহ বকেয়া অর্থ পরিশোধ করে পেনশন হিসাব সচল রাখার সুযোগ পাবেন পেনশনাররা। এমনকি পেনশন তহবিলে জমা হওয়া অর্থ উত্তোলনের প্রয়োজন হলে চাঁদাদাতা ৫০ শতাংশ পর্যন্ত অর্থ ঋণ নিতে পারবেন। এ জন্য নির্ধারিত ফি দিতে হবে। ফিসহ পরিশোধিত অর্থ চাঁদাদাতার নিজ হিসাবেই জমা হবে। প্রত্যেক চাঁদাদাতার জন্য একটি পৃথক ও স্বতন্ত্র পেনশন হিসাব থাকবে।

বাংলাদেশ | বিশ্ব আরও সংবাদ

লক্ষ্মীপুরের ৪টি আসনের ৪৭৭ ভোট কেন্দ্রে পৌঁছেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

কলকাতায় শুরু হচ্ছে ‘ইন্দো-বাংলা নোয়াখালী উৎসব’

মনোনয়ন ফরম জমা দেওয়ার পর কেঁদে দিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সাত্তার পালোয়ান

উপহার খেদমত সেন্টার বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সম্মেলন

তানভীর আলাদিনকে প্রধান সমন্বয়কারী করে ফেনী থিয়েটারের কমিটি গঠন

লক্ষ্মীপুর সোসাইটি ইউ’কের দোয়া ও ইফতার মাহফিল

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল প্রকাশনার নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত, তারিখ: 9/12/2015  
 All Rights Reserved : Lakshmipur24 ©2012- 2024
Chief Mentor: Rafiqul Islam Montu, Editor & Publisher: Sana Ullah Sanu.
Muktijudda Market (3rd Floor), ChakBazar, Lakshmipur, Bangladesh.
Ph:+8801794 822222, WhatsApp , email: news@lakshmipur24.com