সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর সোমবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও পরিবেশ সমস্যা সমাধানে লক্ষ্মীপুরে সবুজ বাংলাদেশ'র যুব সম্মেলন

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও পরিবেশ সমস্যা সমাধানে লক্ষ্মীপুরে সবুজ বাংলাদেশ’র যুব সম্মেলন

147
Share

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও পরিবেশ সমস্যা সমাধানে লক্ষ্মীপুরে সবুজ বাংলাদেশ’র যুব সম্মেলন

কামরুল হাসান হৃদয়: জাতীয় পরিবেশবাদী সংগঠন সবুজ বাংলাদেশ’র আয়োজনে ৪ফেব্রুয়ারি ( শুক্রবার ) বিকেলে রোজ গার্ডেন চাইনিজ রেস্টুরেন্টে বন্যপ্রাণী। সংরক্ষণ, জলবায়ু ও পরিবেশ সমস্যা সমাধানে জনপ্রতিনিধিদের প্রত্যাশা ও যুবদের করণীয় শীর্ষক যুব সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সবুজ বাংলাদেশ এর সভাপতি মোঃ শাহীন আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি, সংসদ সদস্য লক্ষ্মীপুর – ২ আসন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া।

সম্মেলনে বক্তারা বলেন; বনের গাছপালা কৃত্রিম ও প্রাকৃতিক কারণে বিলুপ্ত হওয়ায় বন্যপ্রাণী ও উদ্ভিদ আজ হুমকির মুখে। পরিবেশ হচ্ছে জীবের প্রতিকূল। জলবায়ু হচ্ছে বৈরী। অথচ, বন-ই হচ্ছে প্রাণির জন্ম, বিচরণ, প্রজনন ও বসবাসের উপযুক্ত জায়গা।

আইইউসিএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- বৈরী জলবায়ুর কারণে বাংলাদেশে ৭০৮ প্রজাতির মাছের মধ্যে ৫৪টি, ৬৩২প্রজাতির পাখির মধ্যে ১২টি প্রজাতি বিলুপ্ত হয়েছে এবং ৩০ প্রজাতি বিলুপ্তির পথে। ৪৯ প্রজাতির উভচর প্রাণীর মধ্যে ৮টি, ১৬৭ সরীসৃপ প্রজাতির মধ্যে ১৭টি বিলুপ্তির পথে। ১২৭টি স্তন্যপায়ী প্রজাতির মধ্যে ১২টি বিপন্ন আর ১৭টি বিলুপ্তির পথে। ৫ হাজার প্রজাতির উদ্ভিদের মধ্যে ১০৬টি অস্তিত্ব হুমকির মুখে। ডাইনোসোরের মতো বিলুপ্ত হতে যাচ্ছে বাঘ। প্রতি বছর পৃথিবীতে প্রায় ৫০টি বাঘ কমে যাচ্ছে।

দেশের জীববৈচিত্র্যের অফুরন্ত ভাণ্ডার হচ্ছে বন। বন-ই হচ্ছে জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের ধারক ও বাহক। বন আছে বলেই উদ্ভিদ ও প্রাণী বেঁচে আছে। বন শুধু গাছপালাই রক্ষা করে না। সব প্রাণিজগৎকে বাঁচিয়ে রেখেছে। অনেক উন্নত জাতের ফসল উদ্ভাবনের জন্য বন্য প্রজাতির ফসলের জিন সংগ্রহ করা হয়। প্রায় দুই হাজার প্রজাতির ভেষজ উদ্ভিদের জন্ম, উৎপত্তি, বাস ও নিরাপদ স্থান হচ্ছে বন। আগে বন-ই ছিল মানুষসহ সব প্রাণির খাদ্যের উৎস। প্রকৃতির প্রতিটি উদ্ভিদ ও প্রাণির খাদ্যের জন্য একে অন্যের ওপর নির্ভরশীল।

বন, পরিবেশ রক্ষায় ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় মোট ভূমির ২৫ভাগ বন থাকার প্রয়োজন হলেও বাংলাদেশে আছে এর চেয়ে অনেক কম। বন অক্সিজেন বাড়ায়, বিষাক্ত কার্বন ডাই অক্সাইড।

বন পরিবেশ রক্ষায় ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় মোট ভূমির ২৫ ভাগ বন থাকার প্রয়োজন হলেও বাংলাদেশে আছে এরচেয়ে অনেক কম। বন অক্সিজেন বাড়ায়, বিষাক্ত কার্বন ডাই অক্সাইড কমায়, বৃষ্টিপাত ঘটায়, ভূমিক্ষয় রোধ করে, বন্যা-খরা, ঝড়, জলোচ্ছ্বাস, টর্নেডো প্রতিরোধ করে। বায়ুদূষণ, শব্দদূষণ, পানিদূষণ ও মাটিদূষণ রোধ করে। ওজনস্তর ক্ষয়রোধ করে। বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা কম রাখে। পরিবেশ নির্মল রাখে।

বন ধ্বংসের প্রধান কারণ হচ্ছে- জনসংখ্যা বৃদ্ধি। অতিরিক্ত জনসংখ্যার মৌলিক চাহিদা পূরণের জন্য মানুষ ৬০ ভাগ জ্বালানির চাহিদা পূরণ করছে বনের কাঠ দিয়ে। এছাড়াও বসতবাড়ি নির্মাণ, ফসল চাষাবাদ, রাস্তাঘাট নির্মাণ, নগরায়ণ, জুমচাষ, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বৃক্ষের পরিচর্যার অভাব, পরিবেশদূষণ, পাহাড় কাটা, পাহাড় ধ্বংস, বৃক্ষের রোগ, বনবিধি অমান্য করাসহ বিভিন্ন কারণে বন ধ্বংস হচ্ছে।

দেশের জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের জন্য বন রক্ষা করতে হবে। অর্থাৎ আমাদের সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য বন ও বন্যপ্রাণী অপরিহার্য।

সম্মেলনে আরোও উপস্থিত ছিলেন সবুজ বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বাবু, সহ-সভাপতি মাহবুবুর রশীদ চৌধুরী, মিজানুর রহমান চৌধুরী, মহিন উদ্দিন বি.কম, কামরুল হাসান হৃদয়সহ প্রমুখ।

জলবায়ু | পরিবেশ আরও সংবাদ

লক্ষ্মীপুরে মেঘনার উপকূলীয় বাসিন্দাদের জোয়ার-ভাটার সঙ্গে যুদ্ধ

রামগঞ্জে এক ইটভাটায় তিন গ্রামের মানুষের কষ্ট

কমলনগরে মেঘনার তীর রক্ষাবাঁধ দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী

শীতের শেষে লক্ষ্মীপুরের চরাঞ্চলে অপরিচিত পাখি; শিকার করছে স্থানীয়রা

ডাকাতিয়া নদীকে ‘বদ্ধ জলমহাল’ দেখিয়ে ইজারা; বোরো আবাদ ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও পরিবেশ সমস্যা সমাধানে লক্ষ্মীপুরে সবুজ বাংলাদেশ’র যুব সম্মেলন

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল প্রকাশনার নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত, তারিখ: 9/12/2015  
 All Rights Reserved : Lakshmipur24 ©2012-2022
Chief Mentor: Rafiqul Islam Montu, Editor & Publisher: Sana Ullah Sanu.
Muktijudda Market (3rd Floor), ChakBazar, Lakshmipur, Bangladesh.
Ph:+8801794 822222, WhatsApp , email: news@lakshmipur24.com